সিলেট ৭ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১১ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

১ কোটি ৩০ লাখ মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্তের অর্ধেকই নারী

সিলেটের বার্তা ডেস্ক
প্রকাশিত নভেম্বর ১৪, ২০২২, ০১:৪৩ অপরাহ্ণ
১ কোটি ৩০ লাখ মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্তের অর্ধেকই নারী

ছবি: ইন্টারনেট

অন্যজনকে শেয়ার করুন⤵️Share with others

বিশ্বজুড়ে ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। বাংলাদেশসহ বিশ্বে প্রতি সাত সেকেন্ডে একজন ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হচ্ছেন।

বিশেষজ্ঞদের মতে, ডায়াবেটিস আছে এমন ৫০ শতাংশ মানুষই জানেন না তাদের ডায়াবেটিস আছে। ফলে ডায়াবেটিস সম্পর্কে সচেতনতা বাড়ানো জরুরি।

আন্তর্জাতিক ডায়াবেটিস ফেডারেশনের তথ্যমতে, বর্তমানে দেশে ১ কোটি ৩০ লাখেরও বেশি মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। এদের মধ্যে প্রায় অর্ধেকই নারী। দেশে ১০০ জনের মধ্যে ২৬ জন নারীই গর্ভকালীন ডায়াবেটিসে ভোগেন। তাদের মধ্যে ৬৫ শতাংশই পরবর্তীকালে টাইপ-২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হচ্ছেন।

ডায়াবেটিস সম্পর্কে জনসচেতনতা বাড়াতে বিশ্বের মতো দেশেও আজ সোমবার (১৪ নভেম্বর) পালিত হচ্ছে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস-২০২২। এবারের প্রতিপাদ্য- ‘আগামীতে নিজেকে সুরক্ষায় ডায়াবেটিসকে জানুন।’

বাডাসের সভাপতি ও জাতীয় অধ্যাপক ডা. এ কে আজাদ খান বলেন, মানবদেহে কোনো কারণে ইনসুলিন হরমোনের অভাব হলে, উৎপাদিত ইনসুলিন কার্যকরভাবে শরীরে ব্যবহৃত না হলে বা শরীরের ইনসুলিন নিষ্ক্রিয় থাকলে রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ স্বাভাবিকের চেয়ে বেড়ে যায়। এ গ্লুকোজ পরে প্রসাবের সঙ্গে বেরিয়ে আসে। এ অবস্থাকেই ডায়াবেটিস বলা হয়।

তিনি বলেন, গর্ভকালীন ডায়াবেটিসে আক্রান্ত নারীদের ও গর্ভস্থ শিশুদের টাইপ-২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। গর্ভকালীন ডায়াবেটিস যদি নিয়ন্ত্রণ না করা হয়, তাদের পরবর্তী সময়ে টাইপ-২ ডায়াবেটিস ঝুঁকি আরও বেশি। এ অবস্থায় পরিকল্পিত গর্ভধারণ ও গর্ভকালীন ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখলে টাইপ-২ ডায়াবেটিস অনেকাংশেই প্রতিরোধ সম্ভব। তাই যাদের ডায়াবেটিস আছে, তাদের নিয়ন্ত্রণে রাখার বিষয়ে সচেতন করা দরকার।

গবেষণায় জানা গেছে, বিশ্বে এমন পরিবার নেই যে পরিবারে অন্তত একজন ডায়াবেটিক রোগী অথবা ডায়াবেটিসের ঝুঁকিতে আছেন এমন মানুষ নেই। তাই পরিবারকে ডায়াবেটিস থেকে রক্ষায় সচেতনতা তৈরি করতে হবে। ডায়াবেটিস সারাজীবনের রোগ, একবার হলে তা কখানো সারে না। তবে, ৭০ শতাংশ পর্যন্ত প্রতিরোধযোগ্য ও সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণযোগ্য।

আইডিএফ ডায়াবেটিস এটলাস-২০২১ এর তথ্যানুযায়ী—২০২১ সালে ৫৩ দশমিক ৭ কোটি মানুষ (প্রতি ১০ জনে ১ জন) ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ছিলেন। ২০৩০ সালের মধ্যে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ৬৪ দশমিক ৩ কোটিতে এবং ২০৪৫ সালে ৭৮ দশমিক ৩ কোটিতে পৌঁছাতে পারে। ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ২৪ কোটি মানুষ (প্রতি দুই জনে একজন) জানে না তারা রোগটিতে আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের অধিকাংশই টাইপ-২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত।

আইডিএফ পরিসংখ্যান আরও বলছে, বিশ্বে প্রায় ২ কোটি নারী (প্রতি ছয়জনে একজন) গর্ভাবস্থায় হাইপোগ্লাইসেমিয়ায় (উচ্চ রক্তের গ্লকোজ) আক্রান্ত হয়। ডায়াবেটিসে আক্রান্ত দুই-তৃতীয়াংশ মানুষ শহরাঞ্চলে বাস করেন এবং তিন চতুর্থাংশ কর্মজীবনকালের। ১২ লাখেরও বেশি শিশু ও কিশোর (০-১৯ বছর) টাইপ-১ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। ২০২১ সালে বিশ্বে ৬৭ লাখ মানুষের ডায়াবেটিসের কারণে মৃত্যু হয়েছে। ২০২১ সালে ৯৬৬ বিলিয়ন ডলার স্বাস্থ্য ব্যয় হয় ডায়াবেটিসের কারণে। যা বৈশ্বিক স্বাস্থ্য খাতে মোট ব্যয়ের ৯ শতাংশ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১