আজ বৃহস্পতিবার, ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আজ ভোটাভুটি: কে হচ্ছেন হবিগঞ্জের পৌর মেয়র?

সিলেটের বার্তা ডেস্ক
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২১, ১২:২৬ পূর্বাহ্ণ
আজ ভোটাভুটি: কে হচ্ছেন হবিগঞ্জের পৌর মেয়র?
শেয়ার করুন/Share it

আজ বহুল প্রত্যাশিত হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন। যে হবিগঞ্জে দলের প্রার্থীর প্রচারণায় এসে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছিলেন, ”প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হবিগঞ্জকে দ্বিতীয় গোপালগঞ্জ মনে করে থাকেন।”

আজ ভাগ্য নির্ধারণের দিন। দলের মনোনীত নৌকা প্রার্থীর বিজয় হবে নাকি আ.লীগের বিদ্রােহী প্রার্থীর নারকেল গাছে জয় হবে।

প্রায় ৫১ হাজার ভোটারের হাতে ঝুঁলে আছে ৩২ তম নগর পিতার ভাগ্য। নির্বাচনকে ঘিরে চলছে আলোচনা সমালোচনা। কে হচ্ছেন নগর পিতা। নৌকা প্রার্থী আতাউর রহমান সেলিম না আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী নারিকেল গাছ প্রতিক নিয়ে বর্তমান মেয়ার মিজানুর রহমান। এদিকে ধানের শীষ প্রার্থী এনামূল হক সেলিমও রয়েছেন আলোচনায়।

আজ রোববার সন্ধ্যার মধ্যেই নির্ধারিত হবে, কে হচ্ছেন ‘নতুন নগর পিতা।’ ইতিমধ্যেই সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন।
কঠোর নিরাপত্তার জন্য প্রস্তুুত রয়েছে র‌্যাব-পুলিশ বিজিবি ও আনসার বাহিনীর সমন্বয়ে গঠিত আইন শৃংখলা বাহিনী। শুক্রবার দিবাগত রাত ১২ টার পর থেকেই বন্ধ হয়ে গেছে সব ধরনের প্রচার-প্রচারণা।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সাদেকুল ইসলাম জানান, রোববার সকাল ৮ টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) একটানা চলবে ভোটগ্রহন। নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবে ১শত ২০ সদস্যের ৬ প্লাটুন ‘বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ’ (বিজিবি), র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ান (র‌্যাব)-এর ৪টি টিমসহ বিপুল সংখ্যক পুলিশ ও আনসার সদস্য। এছাড়াও একজন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও ১৬ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সার্বক্ষনিক দায়িত্ব পালন করবেন।

জেলা পুলিশ সূত্র জানায়, পৌর এলাকার ২৪টি ভোট কেন্দ্রে ৬শ ৬০ জন পুুলিশ সদস্য সার্বক্ষনিক নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করবে। এছাড়াও প্রতি কেন্দ্রে থাকবে বাংলাদেশ আনসার ও ভিডিপি’র মহিলাসহ ৯ জন সদস্য। সূত্রমতে পৌর এলাকায় ঝুঁকিপূর্ণ কোন কেন্দ্র নেই। তবে প্রত্যেক প্রার্থীর নিজ কেন্দ্রকে অতি গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র হিসেবে বিবেচনা করা হবে।

আরও পড়ুন:  এবারও জাতিসংঘে বাংলায় বক্তৃতা করবেন প্রধানমন্ত্রী

উল্লেখ্য, নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৬ জন প্রার্থী। এরা হলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত জেলা যুবলীগ সভাপতি আতাউর রহমান সেলিম (নৌকা), হবিগঞ্জ পৌরসভার বর্তমান মেয়র মিজানুর রহমান মিজান (নারিকেল গাছ), বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদি দল (বিএনপি) মনোনীত জেলা বিএনপি’র যুগ্ম-আহবায়ক এডভোকেট এনামুল হক সেলিম (ধানের শীষ), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ (পীর সাহেব চরমোনাই) মনোনীত হবিগঞ্জ ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতি (ব্যকস) সভাপতি মোঃ শামছুল হুদা (হাত পাঁখা), স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ বশিরুল আলম কাওছার (মোবাইল ফোন) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট’র আইনজীবী গাজী পারভেজ হাসান (জগ)।

এছাড়াও নির্বাচনে ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে ৩৯ ও ৩টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১৪ জনসহ ৫৩ জন কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ১৮৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত ৯ দশমিক ০৫ বর্গ কিলোমিটার আয়তনের প্রথম শ্রেণীর এ পৌরসভায় বসবাস করেন প্রায় লক্ষাধিক মানুষ। নির্বাচন কমিশনের দেয়া সর্বশেষ হিসেব অনুযায়ী ‘পায়জামা আকৃতির শহর’ নামে খ্যাত এ পৌরসভার ভোটার সংখ্যা ৫০ হাজার ৯শ ৩ জন। এর মধ্যে নারী ভোটারের সংখ্যা ২৫ হাজার ৬শ ২০। এখানে সর্বশেষ সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর। ১৯৪৭ সাল থেকে সংরক্ষিত পৌরসভার দাপ্তরিক তথ্যানুযায়ী এবার নির্বাচিত হবেন ৩২তম নগর পিতা।

সিলেটের বার্তা ডেস্ক


শেয়ার করুন/Share it
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০