আজ বুধবার, ১২ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে রায়হানের মা

সিলেটের বার্তা ডেস্ক
প্রকাশিত নভেম্বর ১, ২০২০, ০৯:১২ অপরাহ্ণ
বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে রায়হানের মা
শেয়ার করুন/Share it

সিলেটের বার্তা প্রতিবেদক:: বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেছেন সিলেটের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে নিহত রায়হান উদ্দিনের মা সালমা বেগম।

আজ রবিবার (০১ নভেম্বর) তিনি এ আবেদন করেন।

এসময় সালমা বেগম বলেন, তার ছেলেকে পুলিশী হেফাজতে হত্যার ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে যে রিট আবেদন করা হয়েছে তাতে তিনি একজন আবেদনকারী (পক্ষভূক্ত) হতে চান।

সোমবার বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ আবেদনের ওপর শুনানি হবে বলে জানিয়েছেন সালমা বেগমের আইনজীবী ব্যারিস্টার ফয়েজ উদ্দিন আহমদ।

পুলিশ হেফাজতে রায়হান আহমেদের মৃত্যুর ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে গত ১২ অক্টোবর হাইকোর্টে রিট আবেদন (রিট নম্বর-৭১৩২/২০২০) করেন ব্যারিস্টার ফয়েজ উদ্দিন আহমদ। এই রিট আবেদনে নিজেকে আবেদনকারী হিসেবে বিবেচনা করতেই (পক্ষভূক্ত) হাইকোর্টে আবেদন দিয়েছেন রায়হানের মা সালমা বেগম। আদালত এ বিষয়ে সোমবার শুনানির জন্য দিন ধার্য করেছেন বলে জানিয়েছেন আইনজীবী। রায়হানের মৃত্যু নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন সংযুক্ত করে ওই রিট আবেদন করা হয়।

গত ১১ অক্টোবর ভোরে বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে পুলিশের নির্যাতনের শিকার হন রায়হান আহমেদ (৩৫) নামের এক যুবক। পরে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে তিনি মারা যান। পরিবারের সদস্যরা সেখানে ছুটে যান। তারা রায়হানের শরীরে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন দেখতে পান। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী তাহমিনা আক্তার তান্নি বাদী হয়ে ওই দিনই সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা করেন। মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, সিলেটের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে রায়হান আহমেদকে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে।

রায়হানের মৃত্যুর ঘটনায় পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠায় তা তদন্তের জন্য সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (উত্তর) শাহরিয়ার আলম মামুনের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটি পুলিশী নির্যাতনের অভিযোগের সত্যতা পেয়েছে। এ ঘটনায় বন্দরবাজার ফাঁড়ি ইনচার্জ আকবর হোসেন ভুঁইয়াসহ চার পুলিশকে সাময়িক বরখাস্ত এবং তিনজনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। কয়েকজন পুলিশ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এরইমধ্যে মূল অভিযুক্ত আকবর হোসেন ভুইয়া পালিয়ে গেছেন।

আরও পড়ুন:  আবুধাবিতে হৃদরোগে ফেঞ্চুগঞ্জের লাল মিয়ার মৃত্যু

পরিবারের দাবি, গত ১০ অক্টোবর রাতে রায়হানকে বন্দরবাজার ফাঁড়িতে ধরে নিয়ে ১০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করে পুলিশের কয়েকজন সদস্য। ফোনে পরিবারের সদস্যদের টাকা নিয়ে আসতে বলেন রায়হান। গত ১১ অক্টোবর সকালে ৫ হাজার টাকা নিয়ে পরিবারের সদস্যরা থানায় গিয়ে জানতে পারেন, অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সেখানে যেয়ে তারা জানতে পারেন, রায়হান মারা গেছেন।

সিলেটের বার্তা ডেস্ক


শেয়ার করুন/Share it
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০