বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:৪৭ পূর্বাহ্ন

হত্যা চেষ্টা মামলায় জৈন্তাপুরে ইউপি সদস্যসহ পুলিশের খাঁচায় ৬জন

সিলেটের বার্তা ডেস্ক : / ৩৩৭ বার পঠিত
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:৪৭ পূর্বাহ্ন

সিলেটের বার্তা প্রতিবেদক:: হত্যা চেষ্টা মামলায় সিলেটের জৈন্তাপুরে ইউপি সদস্যসহ ৬জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, জৈন্তাপুর উুপজেলার খিলাতেল গ্রামের হাছন আলীর পুত্র ইউপি সদস্য মনসুর আহমদ, ডিবির হাওর গ্রামের কলুর মিয়ার পুত্র আবুল বাহার, খিলাতৈল গ্রামের আবুল কাশেমের পুত্র হোসেন, তার স্ত্রী হেলেনা বেগম, গৌরিসংকর গ্রামের জাকির হোসনের স্ত্রী রহিমা বেগম।

গত ২৬ মার্চ রাত সাড়ে ১১ টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ তাদেরকে গ্রেফতার করে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাত আনুমানিক সাড়ে ১১ টার দিকে নিজপাট ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সদস্য মনসুর আহমদের নেতৃত্বে ফুলবাড়ি, খিলাতৈল, ডিবির হাওর এলাকার অন্তত ৩০ থেকে ৪০ জন লোক দেশীয় অস্ত্র সহ দলবেধে মোহাম্মদ আলী (মাক্কু)-কে প্রাণে মারার জন্য তার বাড়িতে হামলা ও জায়গা দখল করার চেষ্টা চালান।

এ সময় পরিবারের ছেলে-মেয়েদের চিৎকার শুনে পার্শ্ববর্তী বাড়ি ও গ্রামের শত শত লোক এগিয়ে আসেন। ঘটনার খবর পেয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার পুলিশ ও জৈন্তাপুর বিজিবি ক্যাম্পের বিজিবি সদস্যগণ ঘটনাস্থলে ছুটে যান। পুলিশ ও স্থানীয় জনতার ধাওয়া খেয়ে সরকারি জায়গা দখল করতে আসা বহিরাগতরা পালিয়ে যান। এসময় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ঘটনাস্থল থেকে ইউপি সদস্য মনসুর আহমদ সহ ৬ জন কে আটক করে। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। স্থানীয় জনতা ও পুলিশ মোহাম্মদ আলী কে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে জৈন্তাপুর উপজেলা সাস্থ কমপ্লেক্সে ও পরবর্তীতে রাতেই সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করে।

এই ঘটনায় মোহাম্মদ আলী জৈন্তাপুর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করে। ( জৈন্তাপুর মডেল থানার মামলা নং-৩৩,তারিখ-২৬/০৩/২০২০)।

সূত্র আরো জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার বিকেলে ফুলবাড়ি, খিলাতৈল গ্রামের ১৫/২০জন লোক মনসুর আমহদ মেম্বারের নেতৃত্বে মাক্কুর টিলার জায়গা দখল করে ঘর নির্মাণ করার চেষ্টা করে। খবর পেয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফারুক আহমেদ, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সালাহ উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ঘর নিমার্ণ কাজ বন্ধ করে দেন। রাত সাড়ে ৯টার দিকে পুনরায় ঘর নির্মাণ করার চেষ্টা করে।

খবর পেয়ে আবারও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সালাহ উদ্দিন পুলিশ নিয়ে গিয়ে অবৈধ ঘর গুড়িয়ে দেন। এই ঘটনার পর রাত সাড়ে ১১ টায় পুনরায় খিলাতৈল, ফুলবাড়ি, ডিবির হাওর গ্রামের লোক জড় হয়ে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মনসুর আহমদ মেম্বারের নেতৃত্বে বাড়িঘরে হামলা, ভাংচুর ও মোহাম্মদ আলী কে প্রানে মারার চেষ্টা চালান। জৈন্তাপুর থানার পুলিশ ও পার্মবর্তী বাড়ি ও যশপুর, গৌরিসংকর ও কমলাবাড়ি গ্রামের লোকজন এগিয়ে আসায় হামলাকারীরা পালিয়ে যান।

এ ব্যাপারে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার (ইনচার্জ) শ্যামল বনিক জানিয়েছেন, জায়গা জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে। শুক্রবার রাতে একটি পক্ষ জায়গা দখল করার চেষ্টা করে ঘটনাস্থল পুলিশ উপস্থিত হল তারা পালিয়ে যায়। এ সময় পুলিশ ৬জন কে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতদের শুক্রবার জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে একটি হত্যা চেষ্টা মামলা দায়ের করা হয়েছে।


এই ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর